সূর্যের আলো পড়লেই ছুটবে হু হু করে, রাজ্যে প্রথম সৌরশক্তি চালিত মোটরবাইক বানালেন নদিয়ার শুভময় – MICRO SOLAR ENERGY
Responsive image
Article

সূর্যের আলো পড়লেই ছুটবে হু হু করে, রাজ্যে প্রথম সৌরশক্তি চালিত মোটরবাইক বানালেন নদিয়ার শুভময়

https://www.thewall.in/29-01-2019-news-west-bengal-nadia-boy-invents-solar-power-bike/

সৌরশক্তি চালিত বাস, অটো, এমনকি ট্রেনও তো হল। এ বার সৌরশক্তি চালিত মোটরবাইক। পরিবেশ দূষণের বালাই নেই। বাইকের গতিও দুরন্ত। একগাদা গাঁটের কড়ি খসিয়ে পেট্রল, ডিজেল কেনার ঝামেলা নেই। সূর্যের আলো পড়লেই গড়গড়িয়ে চলবে বাইক। রাতে ইচ্ছামতো চার্জ দিয়ে নিলেই কেল্লাফতে।

কোনও নামী সংস্থা নয়, এমন মোটরবাইকের কারিগর বাংলারই ছেলে। নদিয়ার বগুলা কলেজ পাড়ার এলাকার বাসিন্দা শুভময় বিশ্বাস। পেশায় শিক্ষক। প্রাইমারি স্কুলের কচিকাঁচাদের পড়িয়েই আনন্দ পান। আর নেশা বিজ্ঞান। শুভময়ের অবসর কাটে বিজ্ঞান চর্চা করেই। সামান্য জিনিসপত্রকে হাতিয়ার করেই তাঁর গবেষণা। বাড়িতেই বানিয়ে ফেলেছেন নিজের ছোট্ট কর্মশালা। বলেছেন, ‘‘পরিবেশ দূষণের কথা মাথায় রেখেই আমার এই প্রচেষ্টা। সৌরশক্তি চালিত বাইক বানাতে সময় লেগেছে আট মাস। সব মিলিয়ে খরচ পড়েছে ১৮ হাজার টাকা।’’ নিজের বাইকের নাম রেখেছেন ‘সান পাওয়ার মোটরবাইক’।

এই বাইক চালালে পরিবেশ দূষণের সম্ভাবনা কমবে প্রায় ৬০ শতাংশ, এমনটাই জানিয়েছেন শুভময়। তাঁর কথায়, ‘‘জ্বালানি সাশ্রয় তো হবেই, দাম পড়বে বেশ সস্তা।’’ এই বাইকের গতি হবে ঘণ্টায় ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার। সূর্যের আলোয় ব্যাটারি চার্জ হওয়া অবস্থায় বাইকটি চলবে ৬০-৭০ কিলোমিটার পর্যন্ত। শুভময় জানিয়েছেন, এই বাইকে রয়েছে গিয়ার সিস্টেম।

স্কুল জীবন থেকেই নতুন নতুন বিষয় শুভময়কে আকৃষ্ট করত। এমনটাই জানিয়েছেন তাঁর মা। কলেজে পড়ার সময় থেকেই খুটখাট নানা বিষয়ে কাজ করতেন। বাইক চালাতে ভালোবাসেন শুভময়। সৌরশক্তি চালিত বাইক তৈরির ইচ্ছা বরাবরই ছিল। তবে এটাই তাঁর আবিষ্কারের তালিকায় প্রথম নয়। এর আগে ব্যাটারি চালিত সাইকেল বানিয়ে সকলকে চমকে দিয়েছিলেন।  ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইভ’-এর প্রয়োজনীয়তা বোঝাতে বানিয়েছিলেন বিশেষ ধরনের হেলমেট যা মাথায় না পরলে বাইক স্টার্টই হবে না। তবে এ বারের আবিষ্কার অন্যগুলোকে ছাপিয়ে গেছে।

পশ্চিমবঙ্গ বিজ্ঞান মেলায় ইতিমধ্যেই প্রশংসিত শুভময়ের আবিষ্কার। সেরার শিরোপাও ঝুলিতে পুরেছেন তিনি। শুভময়ের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জেলা আরটিও সৌমিত্র বিশ্বাস। তাঁর কথায়, ‘খুব ভালো কাজ করেছে শুভময়। সৌরশক্তি চালিত মোটরবাইক রাজ্যের মধ্যে এই প্রথম। সরকারি অনুমোদনপত্র পেলেই আগামী কয়েক দিনের মধ্যে চালু হতে পারে এই বাইক। ‘’’